রবিবার, ডিসেম্বর ১০, ২০২৩
প্রতিবন্ধীদের কী মর্যাদা দিল ইসলাম
প্রতিবন্ধীদের কী মর্যাদা দিল ইসলাম

প্রতিবন্ধীদের কী মর্যাদা দিল ইসলাম

মাহমুদুল হক হাসান 
প্রকাশের সময় : April 08, 2023 | ফিচার

সৃষ্টির সেরা মানুষ মহান আল্লাহ তায়ালার নিপুন হাতে সৃষ্টি। প্রত্যেক মানুষই মহান আল্লাহ তায়ালার নিকট সমান। সবল -দুর্বল নারী,পুরুষ সুস্থ ও অসুস্থদের মধ্যে আল্লাহর কাছে একে অপরের উপর কোন শ্রেষ্ঠত্ব প্রকাশ পায় না যেমন পবিত্র কুরআনে ইরশাদ হচ্ছে নিশ্চয়ই আল্লাহর কাছে সেই সর্বাধিক সম্মানিত যিনি সর্বাধিক পরহেজগার এবং খোদাভীরু। সূরা হুজুরাত (আয়াত ১৩) মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে তাকওয়া ব্যতীত শারীরিক অবকাঠামোর কোন মূল্য নেই। মানুষ-সাধারণত দু'ভাবে প্রতিবন্ধী হয়ে থাকে এক জন্মগত  দুই হচ্ছে অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনার শিকার হয়ে। ইসলাম প্রতিবন্ধীদের প্রতি অবহেলা নয় বরং সহযোগিতা সহমর্মিতা ও ভালবাসার হাত বাড়িয়ে দিতে উৎসাহিত করেছে। প্রতিবন্ধীদের মধ্যে রয়েছে আল্লাহ প্রদত্তিক মেধা ও প্রতিভার ভান্ডার।

শারীরিক প্রতিবন্ধতা কোন অক্ষমতা নয় বরং অক্ষমতা হলো শারীরিক সক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও অলসতায় গা ভাসানো। ইসলাম প্রতিবন্ধীদের প্রতি সর্বোচ্চ মর্যাদা দিয়েছে। প্রতিবন্ধীরা আমাদের সমাজের এক অবিচ্ছেদ্দ‍্য অংশ। আল্লাহর সৃষ্টির মাঝে কোন ত্রুটি নেই।এ পৃথিবীর  প্রতিটা মানুষকে মহান আল্লাহ তাআলা রহমতের পরশে নিজ হাতে সৃষ্টি করেছেন মানুষ‍্যকুল সৃষ্টিতে স্রষ্টার ব্যতীত কারো হাত নেই যেমন পবিত্র কুরআনে ইরশাদ করেছেন তিনিই  আল্লাহ মাতৃগর্ভে যেভাবে ইচ্ছা তোমাদের আকৃতি দান করেন আকৃতি গঠন করেন সূরা আল ইমরান (আয়াত ৬) ইসলাম প্রতিবন্ধীদের প্রতি মানবিক মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় গুরুত্ব দিয়েছেন প্রতিবন্ধীরা আমাদের সমাজ বা পরিবারের একটা অংশ অন্যান্য স্বাভাবিক মানুষের মতো তাদেরও মৌলিক চাহিদা সম্মানজনক জীবনযাপন এর প্রতি ইসলাম গুরুত্ব প্রদান করেছে ইসলাম সবসময় মানুষকে অন্যের প্রতি সহানুভূতিশীল হতে শেখায়।

প্রতিবন্ধীদের কে ভালোবাসা ও তাদের প্রতি সদাচরণ করে নবীজি সাঃ এর অন্যতম সুন্নাত। নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাই সালাম প্রতিবন্ধীদের বিশেষ গুরুত্ব দিতেন যেমন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী আব্দুল্লাহ হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে উম্মে মাক্তুম রাদিয়াল্লাহু তা'আলা আনহু নবী করীম সাল্লাল্লাহু সালামের স্নেহ ধন্য করেছেন যখনই রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাই সালামকে দেখতেন তখনই তাকে উদ্দেশ্য করে বলতেন স্বাগত জানাই তাকে যা সম্পর্কে আমার রব আমাকে ভৎকর করেছেন আল্লাহর কাছে সবল দুর্বল সুস্থ প্রতিবন্ধীদের আলাদা কোন পরিচয় নেই নেই একের উপর অন্যায়ের শ্রেষ্ঠত্ব আল্লাহতালার কাছে শ্রেষ্ঠ বান্দার মাপকাম্নহল খোদাভীতি ইসলামের বিধান প্রতিপালনে প্রতিবন্ধীদের জন্য শিথিল করা হয়েছে যেমন পবিত্র কুরআনের সূরা বাকারাই আল্লাহতালা এরশাদ করেছেন ২৮৬) নম্বর আয়াত দুর্বল ও প্রতিবন্ধীদের প্রতি দয়া করা সঠিক সুবিধা ও সাহায্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে ইসলামী স্পষ্ট নির্দেশন রয়েছে পবিত্র কুরআনের সূরা যারিয়ায় আল্লাহ তা'আলা এরশাদ করেন তাদের সম্পদ বিত্তবানদের সম্পদের বঞ্চিত অভিভাবীদের অধিকার রয়েছে (আয়াত ১৯) হাদিসে পাকে এসেছে রাসূল সাল্লাল্লাহু (আ)এরশাদ করেছেন আল্লাহ পাক দয়ালুদের উপর দয়া ও অনুগ্রহ করেন যারা জমিনে বসবাস করছে তোমরা তাদের প্রতি দয়া কর তাহলে তিনি জেনে আকাশে আছেন তিনি তোমাদের উপর দয়া করবেন প্রতিবন্ধী যেমনই হোক সে আল্লাহতালার বান্দা সর্বপ্রথম সৃষ্টি তথা মানুষ কোনভাবেই তাদের নিয়ে খেলা ঠাট্টা বিদ্রুপ ব্যঙ্গ উপহাস করা উচিত নয় প্রতিবন্ধীরা সমাজের সীমাহীন দুঃখ কষ্টের শিকার হয়ে থাকে মানুষ আল্লাহর সর্বোত্তম সৃষ্টি হোক সুস্থ স্বাভাবিক বা প্রতিবন্ধী প্রতিবন্ধীদের কোনোভাবেই বোঝা মনে করা যাবে না বরং তাদের মেধা ও প্রতিভাকে কাজে লাগিয়ে জাতের কল্যাণী তাদেরকেও অবদান রাখার সুযোগ করে দিতে হবে পবিত্র কুরআনে মহান আল্লাহ পাক সুস্থদের উদ্দেশ্যে এরশাদ করেন তুমি তোমার সুমহান রবের নামের পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা কর।

যিনি সৃষ্টি করেন, সুঠাম করেন এবং পরিমিত বিকাশ সাধন করেন ও পথ নির্দেশ করেন মহান আল্লাহ তায়ালার স্বহস্তে সৃজনকৃত জন্মগত প্রতিবন্ধীদের কে দুনিয়ার বুকে প্রেরণের পেছনে মহান রবের অপূর্ব নিদর্শন ও নিগুঢ় উদ্দেশ্য রয়েছে যার রহস্য একমাত্র তিনি ভালো জানেন পবিত্র কুরআন নিয়ে মহান আল্লাহপাক সুস্থ দের উদ্দেশ্য এর করেন তুমি তোমার ও সম্ভাবের নামের পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষনা কর যিনি সৃষ্টি করেন এবং পরিমিত বিকাশ সাধন করেন ও পথ নির্দেশ করেন সূরা এক থেকে তিন আয়াত সভ্যতার ক্রমবিকাশে যুগ পরিক্রমায় প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠী সম্পর্কে নেতিবাচক মনোভাব অনেকাংশেই কমে এসেছে।  

ইসলামে প্রতিবন্ধী দুর্বল ও অক্ষম ব্যক্তিদের বিশেষ মূল্যায়ন আর্থিক সহযোগিতার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে হাদিসে পাকে এসেছে নবী করীমী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন তোমরা ক্ষুধার্তকে খাবার দাও অসুস্থ ব্যক্তিদের খোঁজ নাও এবং বন্দিদের মুক্তি দাও (বুখারী ৫০) ইসলাম প্রতিবন্ধীদের কে সকল কাজে অংশগ্রহণ করে অবদান রাখতে উৎসাহিত করেছে। ইসলামের বিধিবিধান পালনে কঠোর নিদর্শনাবলী গুলো প্রতিবন্ধীদের জন্য সহজ করা হয়েছে যেমন পবিত্র কুরআনের সূরা তাওবাহে ইরশাদ হচ্ছে অসামর্থকদের জন্য কোন অপরাধ নেই (আয়াত ৯১)