রবিবার, মার্চ ৩, ২০২৪
অবিভাবককে অপমান করায় প্রধান শিক্ষিকা বরখাস্ত
বগুড়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রাবেয়া খাতুন।

অবিভাবককে অপমান করায় প্রধান শিক্ষিকা বরখাস্ত

বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশের সময় : April 12, 2023 | শিক্ষাঙ্গন

বিনা নোটিশে ডেকে এনে অভিবাবককে অপমান করার ঘটনায় এবার বগুড়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রাবেয়া খাতুনকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হয়েছে।

সম্প্রতি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, রাবেয়া খাতুনকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্ব দিয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে বদলি করা হয়েছে। উল্লেখ্য, শিক্ষকদের নির্দেশে প্রতিদিন নিয়ম করে শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষ ঝাড়ু দেয়। কিন্তু বগুড়া জেলা জজ আদালতের এক বিচারকের মেয়ে শ্রেণিকক্ষ ঝাড়ু দিতে না চাইলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা এতে আপত্তি তোলে। এটা নিয়ে সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাল্টাপাল্টি পোস্ট দেয়ার ঘটনা ঘটে।

পরে গত মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় বিদ্যালয়ে এসে চার শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দেয়ার অভিযোগে মামলা করার হুমকি দেয় ওই বিচারক। একপর্যায়ে এক নারী অভিভাবককে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করেন বিচারক। এ সময় বিচারকের পক্ষ নিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের গালমন্দ করে টিসি দিয়ে বিদ্যালয় থেকে বের করে দেয়ার হুমকি দেন প্রধান শিক্ষক রাবেয়া।

এছাড়া প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের বিনা নোটিশে ডেকে এনে অপদস্থ করেন এক শ্রেণিশিক্ষক। প্রধান শিক্ষকের কক্ষে ঘটে যাওয়া এসব ঘটনার প্রেক্ষিতে ওই দিন বেলা আড়াইটার দিকে ৩ দফা বগুড়া শহরের সার্কিট হাউসের সামনের সড়ক অবরোধ করে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

পরে শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিদ্যালয়ের মিলনায়তনে ২ ঘণ্টা বৈঠক করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) নিলুফা ইয়াসমিন। বৈঠকে ওই বিচারককে বিদ্যালয়ে এসে ভুক্তভোগী অভিভাবকের কাছে ক্ষমা চাওয়াসহ প্রধান শিক্ষক ও শ্রেণিশিক্ষককে বদলির দাবি জানায় শিক্ষার্থীরা।

বগুড়া জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম বলেন, বগুড়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রাবেয়া খাতুনকে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর ঢাকায় সংযুক্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় এ সপ্তাহের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন দিবে গঠিত তদন্ত কমিটি। তদন্তে কেউ অপরাধী প্রমাণিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।